গণপিটুনির শিকার ব্যক্তিদের বাঁচাতে সরকারের ব্যর্থতা প্রশ্নে হাইকোর্টের রুল

গণপিটুনিতে নিহত তাসলিমা বেগম রেনুসহ অন্যদের বাঁচাতে বিবাদিদের ব্যর্থতা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।

একইসাথে গণপিটুনির বিষয়ে কী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে ও গণপিটুনির সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে তা জানাতে বলেছেন আদালত।

আগামী ২৮ নভেম্বরের মধ্যে স্বরাষ্ট্র সচিব ও পুলিশের মহাপরিদর্শককে তা জানাতে বলা হয়েছে।

এক রিটের শুনানি করে সোমবার বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান।

গত ২০ জুলাই রাজধানীর উত্তর-পূর্ব বাড্ডার বাড্ডা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছেলেধরা সন্দেহে তাসলিমা বেগম রেনুকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় রিট আবেদন করেন অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান।

রিটে গণপিটুনিতে তাসলিমা বেগম রেনুসহ অন্যদের বাঁচাতে বিবাদীদের ব্যর্থতা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, এই মর্মে রুল জারির আর্জি জানানো হয়।

মন্ত্রী পরিষদ সচিব, স্বরাষ্ট্র সচিব, আইন সচিব, তথ্য সচিব, পুলিশের আইজি, ডিএমপি কমিশনার ও বাড্ডা থানার ওসিকে রিটে বিবাদি করা হয়।
সূত্র : ইউএনবি