চিৎকার শুনে মায়ের কাছে গিয়ে ৪ বছরের মেয়েরও করুণ মৃত্যু

বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার পার্শবর্তী কালাই মোলামগাড়ী বাজারের নিকট একটি বাড়িতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মা-মেয়ের করুণ মৃত্যু হয়েছে। সোমবার সকাল পৌনে ৯টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন ওই এলাকার বাসিন্দা স্বর্ণকার ফরিদুল ইসলামের স্ত্রী স্বপ্না বেগম (৩২) ও তার ৪ বছরের মেয়ে শিমু আক্তার।

স্থানীয়রা জানান, সকালে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত ফরিদুল ইসলাম হাঁটার জন্য মাঠে যায়। তার স্ত্রী স্বপ্না বেগম নিজ বাড়ির কাজ শেষে নিজেদের ধোয়া কাপড় শুকানো জন্য উঠানে মিটারের তারের সঙ্গে লাগানো জিআই তারের উপরে কাপড় দিতে গিয়ে তার হাত পরলে স্বপ্না বেগম চিৎকার দিয়ে ওঠেন। তার চিৎকার শুনে সঙ্গে থাকা মেয়ে শিমু মাকে জড়িয়ে ধরলে সেও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে গুরুতর আহত হয়।

প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে দ্রুত তাদের উদ্ধার করে কালাই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের দুজনকেই মৃত ঘোষণা করেন।

এই ব্যাপারে কালাই থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল লতিফ খান জানান, পরিবারের পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ না থাকায় মা-মেয়ের লাশ ময়না তদন্ত ছাড়াই দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।