ঢাবি ছাত্রী সুমাইয়া হত্যা: স্বামী ও শ্বশুর গ্রেপ্তার

জুন ২৫ ২০২০, ০৯:০৬

নাটোরের হরিশপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ছাত্রী সুমাইয়া বেগম হত্যা মামলার প্রধান আসামি স্বামী মোস্তাক হোসেন ও শ্বশুর জাকির হোসেনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা।

পুলিশ সুপার জানান, বুধবার রাত ২টার দিকে মোস্তাক ও তার বাবা জাকির হোসেনকে বগুড়া জেলার নন্দীগ্রাম উপজেলা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে এই মামলায় সুমাইয়ার শাশুড়ি সৈয়দা মালেক ও ননদ জাকিয়া ইয়াসমিন যুথিকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ সুপার আরও জানান, মামলার অধিকতর তদন্তের স্বার্থে গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের আদালতে পাঠিয়ে রিমান্ড চাওয়া হবে।

সুমাইয়ার পরিবারের লোকজন জানায়, ২০১৯ সালের ১৪ এপ্রিল নাটোর সদরের হরিশপুর বাগানবাড়ি এলাকার মোস্তাক হোসাইনের সঙ্গে বিয়ে হয় সুমাইয়ার। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগ থেকে মাস্টার্স পরীক্ষা শেষে ফলাফলের অপেক্ষায় ছিলেন তিনি। সুমাইয়া বিসিএস ও সরকারি চাকরির জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। কিন্তু বেকার স্বামী মোস্তাক তা মেনে নিতে পারেননি। তিনি শারীরিক নির্যাতন চালাতেন সুমাইয়ার ওপর। গত ২২ জুন সুমাইয়ার ওপর নির্যাতন চালালে তিনি জ্ঞান হারান। তাকে নাটোর সদর হাসপাতালে নিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে অপপ্রচার চালায়।

গত ২৩ জুন সুমাইয়ার মা নুজহাত বাদী হয়ে চারজনকে আসামি করে সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

Share Button