দুদকের কাছে ইদ্রিস খানের ৩০০ কোটি টাকার সম্পদ লুকানোর চক্রান্ত ফাঁস (অডিও শুশুন)

বিশেষ প্রতিনিধিঃ কথিত ‘ময়মনসিংহ প্রতিদিন’ পত্রিকার সম্পাদক ও ময়মনসিংহ ডিএস আলিয়া মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা ইদ্রিস খানের দুদকের কাছে ২০ বিঘারও বেশি (প্রায় ৩০০ কোটি টাকার) সম্পদ লুকানোর অডিও চক্রান্ত ফাঁস হয়েছে। চক্রান্তের সেই অডিও ইতোপূর্বে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম তথা ফেসবুক ও ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়েছে।

অডিও হতে জানা যায়, ইদ্রিস খান নিজে তার ২০-২২ বিঘা জমি থাকার কথা স্বীকার করেন এবং তার এক কাছের লোকের মাধ্যমে দুদককে ঘুষ দিয়ে ২০-২২ বিঘা সম্পদকে ৪-৫ বিঘা বানিয়ে সরকারকে কর ফাঁকি দেয়ার যড়যন্ত্র করে।

জানা যায়, এছাড়াও তার ময়মনসিংহে বাড়ি গাড়ি, ফ্ল্যাটসহ রয়েছে স্থাবর অস্থাবর সম্পত্তি। রেকর্ডে শুনা যায়, ইদ্রিস খান তার সেই লোককে  ২০-২২ বিঘা জমিকে ৫ বিঘা বানিয়ে দেয়ার অনুরোধ করেন। বিনিময়ে তাকে সে পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুষ প্রদান করবেন। এমন অফার পেয়ে সেই লোক তথ্যাদি সংগ্রহের জন্যে সাব রেজিষ্টার অফিসে গেলে ইদ্রিস খানের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ নামা দেখতে পান, সেই অভিযোগে তাকে ভূয়া সনদ ব্যবহার করে প্রিন্সিপাল হন বলে অভিযোগ পাওয়া যায়।

ফোন কলের এমন একটি অডিও রেকর্ড সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের Bdfactfinding নামক পেইজে পাওয়া যায়। যেখানে তিনি অডিওটি শেয়ার করে বলেন, ‘এইসেই অডিও যা দিয়ে আমাকে ব্ল্যাকমেইল করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য যে, ইদ্রিস খানের সম্পাদনা ও প্রকাশনায় ‘দৈনিক ময়মনসিংহ প্রতিদিন’ নামক পত্রিকায় বিভিন্ন স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান, ও সম্মানিত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আপত্তিকর ভিত্তিহীন সংবাদ প্রচার করে তাদের ব্ল্যাকমেইলিং করা হতো। এবং সম্মানহানীর ভয় ভীতি দেখিয়ে মোটা অংকের টাকা দাবী করতো। চাঁদাবাজির মাত্রা মাত্রাতিরিক্ত হওয়ায় বর্তমানে দৈনিকটি বন্ধ আছে।

শুশুন সেই চক্রান্তের অডিওটিঃ