পাহাড় ধসে প্রাণ গেলো দুই ঘুমন্ত শিশুর

ভারী বর্ষণে টেকনাফে পাহাড় ধসে ঘুমন্ত অবস্থায় দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও ছয়জন।

মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে টেকনাফ পৌরসভার পুরাতন পল্লানপাড়া ও তার পার্শ্ববর্তী এলাকায় পৃথক দুটি পাহাড় ধসে হতাহতের ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হচ্ছে- পুরাতন পল্লান পাড়ার রবিউল আলমের ছেলে মেহেদী হাসান (১১) এবং একই এলাকার মোহাম্মদ আলমের মেয়ে আলিফা (৫)।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. রবিউল হাসান ও টেকনাফ মডেল থানার পুলিশ উপ-পরিদর্শক (এসআই) স্বপন চন্দ্র দাশ জানান, টানা বর্ষণের ফলে মঙ্গলবার ভোরে হঠাৎ পাহাড় বসতঘরের ওপর ধসে পড়লে হতাহতের ঘটনা ঘটে। ধসে যাওয়া পাহাড়ের নীচ থেকে উদ্ধার করে শিশু দুটিকে মঙ্গলবার সকাল ৭টার দিকে টেকনাফ উপজেলা হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

তারা জানান, আহত একজনকে টেকনাফ উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্য পাঁচজনকে হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

টানা বর্ষণের কারণে টেকনাফে পাহাড়ের পাদদেশের বসতঘরগুলো চরম ঝুঁকিতে রয়েছে বলে জানান ওই কর্মকর্তারা।