পুলিশ বাহিনীকে ‘বিশেষ ভাতা’ : সরকারের ব্যয় বাড়বে প্রায় ৩৫৫ কোটি ৮৬ লাখ টাকা

নভেম্বর ১৩ ২০২০, ০৬:২৯

বিশেষ ভাতা পেতে যাচ্ছেন দেশের পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা। এক মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ বিশেষ ভাতাসহ ১৫ দিনের ‘শ্রান্তি বিনোদন ছুটি’ পাচ্ছেন পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা। পুলিশের কর্মোদ্দীপনা বৃদ্ধি জন্য প্রতি বছর এই ভাতা দেয়া হবে বলে জানা গেছে। পুলিশ বাহিনীতে কর্মরত সব সদস্যকে বিশেষ ভাতা প্রদানের জন্য বছরে সরকারের ব্যয় বাড়বে প্রায় ৩৫৫ কোটি ৮৬ লাখ টাকা। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ‘জননিরাপত্তা বিভাগ’ থেকে একটি চিঠি গতকাল বৃহস্পতিবার অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থসচিব বরাবর পাঠানো হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট এক সূত্র জানিয়েছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ থেকে উপসচিব ফারজানা জেসমিন স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে বলা হয়েছে, চলতি বছর ‘পুলিশ সপ্তাহ ২০২০’ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে পুলিশ বাহিনীর সদস্যদের কর্মোদ্দীপনা বাড়ানোর লক্ষ্যে বছরে এক মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ বিশেষ ভাতাসহ ১৫ দিনের শ্রান্তি বিনোদন ছুটি প্রদানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর প্রদত্ত ওই প্রতিশ্রুতির আলোকে পুলিশ অধিদফতরের চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

চিঠিতে বলা হয়েছে, চাকরির বয়স অনুযায়ী, চাকরির প্রথম ও দ্বিতীয় বছরে শুধুমাত্র এক মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ বিশেষ ভাতা পাবেন পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা। চাকরির তৃতীয় বছর থেকে বিশেষ ভাতাসহ বছরে ১৫ দিনের ‘শ্রান্তি বিনোদন ছুটি’ও প্রাপ্য হবেন এবং এটা অব্যাহত থাকবে।

এ বিষয়ে পুলিশের এক সদস্য নাম না প্রকাশের শর্তে বলেছেন, অন্য বাহিনীর শ্রান্তি বিনোদন ভাতা কোনো ক্ষেত্রে এক মাস আবার কোনো ক্ষেত্র দুই মাস পর্যন্ত হয়ে থাকে। কিন্তু পুলিশের ক্ষেত্রে শ্রান্তি বিনোদনভাতা খুবই কম। অধিক উিউটি থাকার কারণে তারা অনেক সময় ছুটিও পান না। এই বিবেচনায় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক পুলিশ বাহিনীর প্রতি এই প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়েছে আমাদের মনে হয়েছে।

এ বিষয়ে অর্থ বিভাগের সাথে যোগাযোগ করা হলে সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা গতকাল বিকেলে জানান, এখন পর্যন্ত এ ধরনের কোনো চিঠি তাদের কাছে আসেনি। এলে এ বিষয়ে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।

Share Button