বিচারকের নিরাপত্তা নিয়ে হাইকোর্টে রুল

দেশের বিচারকদের নিরাপত্তা নিয়ে হাইকোর্ট বলেছেন, কুমিল্লা আদালতে বিচারকের সামনে একজনকে হত্যার ঘটনায় আমরা আমাদের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন। আগে নেত্রকোনা আদালতে দুইজন বিচারককে হত্যা করা হয়েছিল। আবার গাজীপুরে আদালতেও হামলা চালিয়েছিল সন্ত্রাসীরা। এ কারণে আমরা বিচারকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে রুল জারি করছি।

আজ বুধবার হাইকোর্টের বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ সংক্রান্ত এক রিটের শুনানি নিয়ে রুল জারির আদেশ দেন।

পরে দেশের সব আদালতের বিচারকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য নির্দেশ কেন দেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।
আদালতে আজ রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান। অন্যদিকে, রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার এবিএম আবদুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার।

রিটের শুনানিতে আইনজীবী ইশরাত হাসান বলেন, দেশের কোর্টগুলোর নিরাপত্তাহীনতার কারণে একজন আসামীকে আদালতের ভিতরে হত্যা করা হয়েছে। তাই দেশের সকল আদালতের নিরাপত্তার বিষয়ে নির্দেশনা চাই।

তখন আদালত বলেছেন, কুমিল্লা আদালতে বিচারকের সামনে একজনকে হত্যার ঘটনায় আমরা আমাদের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন। এর আগে নেত্রকোনার আদালতে দুইজন বিচারককে হত্যা করা হয়েছিল। আবার গাজীপুরে আদালতেও হামলা চালিয়েছিল সন্ত্রাসীরা। এ কারণে আমরা বিচারকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে রুল জারি করছি।

এর আগে গত ১৬ জুলাই কুমিল্লা আদালতে বিচারককের সামনে হত্যা মামলার এক আসামি অপর আসামিকে ছুরিকাঘাতে হত্যা ঘটনায় আদালতঅঙ্গন ও বিচারকদের যথাযথ নিরাপত্তা প্রদানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়। এক বিচারকের স্ত্রী ও সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান এ রিট দায়ের করেন।

পরে অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান বলেন, কুমিল্লায় আদালত কক্ষে বিচারকের সামনে যেভাবে হত্যা করা হয়েছে। বিচারকের স্ত্রী হিসেবে এ ঘটনায় আমি উদ্বিগ্ন। এ কারণে আমি সমগ্র আদালত অঙ্গন ও বিচারকদের যথাযথ নিরাপত্তা প্রদানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট করেছি। রিটে মন্ত্রীপরিষদ সচিব, আইন সচিব, স্বরাষ্ট্র সচিবসহ সংশ্লিষ্টদের বিবাদী করা হয়েছে।

গত ১৫ জুলাই কুমিল্লা আদালতে হত্যা মামলার এক আসামি অপর আসামিকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে। কুমিল্লার তৃতীয় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক ফাতেমা ফেরদৌসের আদালতে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনায় নিহত যুবকের নাম ফারুক হোসেন (২৭)। অভিযুক্ত আবুল হাসানকে (২৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তারা মামাতো-ফুফাতো ভাই।