সিরাজগঞ্জে ছুরিকাঘাতে তাঁত শ্রমিকের মৃত্যু

সিরাজগঞ্জে ছুরিকাঘাতে আব্দুল কাদের (৩৫) নামে এক তাঁত শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। রোববার রাতে এনায়েতপুর থানাধীন আজুগড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় সাবেক মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ মন্ত্রী এবং বর্তমান জেলা পরিষদ প্রশাসক আব্দুল লতিফ বিশ্বাসের ভাইয়ের ছেলে নান্নু বিশ্বাসসহ ১২/১৩ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে।
পুলিশ জানায়, তাঁত ব্যবসায়ী টুলু হাজীর ভাগ্নে ইসমাইলের সাথে নান্নু বিশ্বাসের প্রতিবন্ধী মেয়ে নার্গিস খাতুনের ৩ বছর আগে বিয়ে হয়। বিয়ের পর নার্গিস শ্বশুর বাড়ির লোকজনের সাথে অস্বাভাবিক আচরণ করে আসছিল। এ জন্য তাকে মানসিক ভারসাম্যহীন বলা হত। এসব বিষয় নিয়ে রোববার রাত সাড়ে ১০টার পর মদ্যপ অবস্থায় নান্নু বিশ্বাস দলবল নিয়ে এসে টুলু হাজীসহ স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য শামসুলকে প্রহার করে। এলাকাবাসী এর প্রতিবাদ জানালে এক পর্যায়ে তাদের সাথেও সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে তারা। এসময় নান্নু বিশ্বাসের ছুরিকাঘাতে ক্ষিদ্র গোপরাখি গ্রামের নুর হোসেনের ছেলে আব্দুল কাদের গুরুতর জখম হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে দ্রুত এনায়েতপুর খাজা ইউনুস আলী (র:) হাসপাতালে ভর্তি করা হলে রাতেই মৃত্যু হয়।
এনায়েতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় কাদেরের স্ত্রী আমেনা খাতুন বাদী হয়ে নান্নু বিশ্বাসসহ কমপক্ষে ১২-১৩ জনের নামে এনায়েতপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।
ঘটনার পর থেকে এনায়েতপুর থানার কামারপাড়া গ্রামের হামিদ বিশ্বাসের ছেলে নান্নু বিশ্বাস পলাতক রয়েছেন বলে জানান ওসি।
এ ব্যাপারে আব্দুল লতিফ বিশ্বাসের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন,’ঘটনার সাথে যারাই জড়িত থাকুক না কেন, তাদেরকে পুলিশ ধরে আইনের আওতায় আনবে এটাই স্বাভাবিক।  আমার ভাতিজাও যদি জড়িত থাকে, সেখানে আমার বলার কিছু নেই। আইন তার নিজস্ব গতিতেই চলবে।’